ফুলবাড়ীয়ার খবর

ফুলবাড়ীয়ায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নেত্রী সেলিমা বেগম সালমার ২৯২তম উঠান বৈঠক

আজকের ফুলবাড়ীয়া ডেস্ক : আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ময়মনসিংহ ৬ ফুলবাড়ীয়া আসনে সরকারের উন্নয়ন প্রচার ও নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন এবং পৌরসভার ১২৬টি ওয়ার্ডের পাড়া মহল্লা চষে বেড়াচ্ছেন নারী নেতৃত্বের উজ্জ্বল নক্ষত্র, ফুলবাড়ীয়ার অগ্নিকন্যা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী সেলিমা বেগম সালমা।

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) উপজেলার ৩নং ইউনিয়নের মিজান ডাক্তারের বাড়িতে ২৯২তম উঠান বৈঠকে অংশ নেন সেলিমা বেগম সালমা। স্থানীয় তৃণমূল আওয়ামী লীগ কর্মীদের আয়োজনে উঠান বৈঠকে স্থানীয় নারী ভোটারদের পাশাপাশি সামাজিক সচেতন মহল যোগদান করেন।

অনুষ্ঠান গুলোর শুরুতেই শোকের মাস আগষ্টে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের শাহাদাত বারণকারী সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় বক্তব্য রাখেন তিনি। অনুষ্ঠান গুলোতে অংশ নেওয়া ভোটাররা বেশ প্রাণবন্ত এবং আগামী নির্বাচনে সেলিমা বেগম সালমাকে এই আসনে এমপি হিসেবে দেখতে চান তারা।

গত এক বছরের কম সময়ের মধ্যেই ফুলবাড়ীয়া উপজেলায় প্রায় ৩ শতাধিক উঠান বৈঠক ও প্রায় দেড় শতাধিক পথসভা সম্পন্ন করে গণসংযোগে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন তিনি। বর্তমান ফুলবাড়ীয়া উপজেলায় আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন একেবারে তৃণমূল পর্যায়ে মানুষের ঘরে ঘরে ও পথে প্রান্তের একমাত্র ব্যাক্তি হিসেবে প্রচার করে তাদের খুজ খবর নিচ্ছেন এবং আলাদা আলাদা কথা বলে তাদের সুখে দুঃখে পাশে থাকার অঙ্গিকার রাখছেন সেলিমা বেগম সালমা। অনুষ্ঠান গুলোতে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সেলিমা বেগম সালমার বড় ছেলে ঐহিক তারিক।

উঠান বৈঠকে দেওয়া বক্তব্যে সেলিমা বেগম সালমা বর্তমান সরকারের নানাবিধ উন্নয়ন, গরিব অসহায়দের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প, ভাতা ইত্যাদি আলোচনা করেন। স্থানীয় ভোটারদের সার্বিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করে সেলিমা বেগম সালমা সুখে দুঃখে তাদের পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। আগামী সংসদ নির্বাচনে ফুলবাড়ীয়া আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন এবং আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে সবাইকে উৎসাহিত করেন।

সম্পর্কিত সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button