বাংলাদেশ

ফুলবাড়ীয়ায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নানান কর্মসূচি

আজকের ফুলবাড়ীয়া ডেস্ক : ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নানান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

দিবসটি পালনে মঙ্গলবার (১৫ আগস্ট) সকালে ফুলবাড়ীয়া পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মালেক সরকার এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী সেলিমা বেগম সালমার নেতৃত্বে শহরের পশ্চিম বাজারে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে জমায়েত হন নেতাকর্মীরা। পরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন নেতৃবৃন্দরা।

পরে একটি শোক র্যালি দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহরের বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সৌধ চত্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণের মাধ্যমে শেষ হয়। শোক র্যালিটির নেতৃত্ব দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মালেক সরকার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী সেলিমা বেগম সালমা। এসময় ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগ সহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

পরে সংক্ষিপ্ত শোক সভায় পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফার পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মালেক সরকার, সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী ও নব্বইয়ের গনঅভ্যুত্থানে নেতৃত্বদানকারী সেলিমা বেগম সালমা, সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য রুহুল আমিন, সাবেক উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার আবু বকর সিদ্দিকী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শরাফ উদ্দিন শর, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওছেক বিল্লাহ শামীম ও উপজেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল প্রমুখ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী, নব্বইয়ের গনঅভ্যুত্থানে নেতৃত্বদানকারী ও আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ ৬ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সেলিমা বেগম সালমা বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের মুক্তিকামী মানুষকেই স্বাধীনতা উপহার দেননি; বরং সমগ্র পৃথিবীর মুক্তিকামী মানুষের জন্য তিনি ছিলেন সংগ্রামের এক অনন্য অনুপ্রেরণা। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে স্বাধিকার ও স্বাধীনতা অন্দোলনের প্রাণপুরুষ হিসেবে অসামান্য অবদান রাখার কারণে বাঙালি জাতি তাকে প্রথমে বঙ্গবন্ধু ও পরবর্তী সময়ে জাতির পিতা হিসেবে বরণ করে করেছে। এসময় তিনি বিএনপি জামাতের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা সকলকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

সম্পর্কিত সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button